বৃহস্পতিবার 7 রবীউল আউওয়াল 1440 - 15 নভেম্বর 2018
বাংলা

দুই নিয়্যতে এক রোজা পালন এবং ইবাদতগুলোর একটি অপরটির মধ্যে প্রবেশ করা সংক্রান্ত মাসয়ালা

প্রশ্ন

প্রশ্ন: চন্দ্রমাসের তিন দিনের রোজা ও আরাফা দিনের রোজার নিয়্যত কি একত্রে করা যাবে? আমরা কি দুটোরই সওয়াব পাব?

উত্তর

সমস্ত প্রশংসা আল্লাহর জন্য।
ইবাদতগুলোর একটি অপরটির মধ্যে প্রবেশ করাদুই প্রকার:

প্রথম প্রকার:

অশুদ্ধ প্রকার: (১) যেসমস্ত ইবাদত স্বতন্ত্রভাবেউদ্দিষ্টঅথবা (২) যেসমস্ত ইবাদত অন্য কোন ইবাদতেরঅনুবর্তী সে সব ইবাদতের একটিঅপরটিরমধ্যেপ্রবেশকরবেনা।যেমনকোনব্যক্তিরযদি ফজরেরসুন্নতনামাজছুটেযায়; এমনকি সূর্যউঠেসালাতুতদোহাএরসময়উপনীতহয় সেক্ষেত্রেসালাতুতদোহাএরবদলেফজরেরসুন্নতযথেষ্টহবেনাঅথবাফজরেরসুন্নতএরবদলেসালাতুতদোহাওযথেষ্টহবেনা এবংএ দুই নামাযকেএক নিয়্যতেও আদায়করাযাবেনা।কারণফজরেরসুন্নতস্বতন্ত্রএকটি ইবাদতএবংসালাতুতদোহাস্বতন্ত্রআরেকটিইবাদত। একটিরপরিবর্তে অন্যটিযথেষ্টহবেনা।

একইভাবেযদিকোন একটিইবাদততারআগেরইবাদতেরঅনুবর্তীহয়সেক্ষেত্রেও এই ইবাদতগুলোর একটি অন্যটিরমধ্যেপ্রবেশকরাশুদ্ধনয়। যদিকোনব্যক্তিএকথাবলেযেআমিফজরেরসালাতেরনিয়্যতেফরজওসুন্নতদুটোএকসাথেআদায়করতেচাই, তবেআমরাবলবসেটাশুদ্ধহবেনা।কারণ ফজরেরসুন্নতসালাতফজরের ফরজ সালাতের অধীনতাইএটাওটারপরিবর্তেযথেষ্টহবেনা।

দ্বিতীয় প্রকার:

যেইবাদতের দলীলদ্বারাস্ব-জাতীয় যে কোন ইবাদত পালনউদ্দেশ্য;স্বতন্ত্রভাবেবিশেষ কোনইবাদত পালনউদ্দিষ্টনয়এমনইবাদতগুলোরএকটিঅপরটিরমাঝেপ্রবেশকরতেপারে। যেমনকোনব্যক্তিমসজিদেঢুকে লোকদেরকে সালাতুলফজরআদায়রত অবস্থায় পেলেন। মসজিদেপ্রবেশকরলেদুইরাকাত (তাহিয়্যাতুলমসজিদ) সালাতআদায়নাকরেবসা যায় না- এ বিধান সবাই জানে।এখন এ ব্যক্তি যদিইমামেরসাথেফরজ নামাজের জামাতেযোগদান করেনতবুওতিনিসেইদুইরাকাত (তাহিয়্যাতুলমসজিদ) নামাজেরসওয়াব পেয়ে যাবেন।কেন?কারণতাহিয়্যাতুলমসজিদের উদ্দেশ্য মসজিদেপ্রবেশেরপরযে কোন প্রকারের দুইরাকাতসালাতআদায়করা।অনুরূপভাবেকোনব্যক্তিযদি সালাতুতদোহারসময়মসজিদেপ্রবেশকরেদুইরাকাতসালাতআদায়করেএবংএরদ্বারাসালাতুতদোহারনিয়্যতকরেতবেতাতাহিয়্যাতুলমসজিদএরস্থলেওযথেষ্টহবে।আরযদিসেউভয় নামায (তাহিয়্যাতুলমসজিদওসালাতুতদোহা) এরনিয়্যতকরেতবেতাঅধিকপরিপূর্ণ।

এটিহল ইবাদতসমূহেরএকটি অপরটিরমাঝেপ্রবেশকরারক্ষেত্রেমূলনীতি।একই নীতি রোজার ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য। যেমন:আরাফার দিনের রোজা। এখানে উদ্দেশ্য হল- এই দিনটিসিয়ামপালনরত অবস্থায় কাটানো। তা প্রতি মাসের তিনদিন রোজা পালনের নিয়্যতেই হোক অথবাআরাফার দিনের রোজার নিয়্যতেই হোক।তবে আপনি যদি শুধুআরাফার দিনের জন্য নিয়্যত করে থাকেন,তবে তা সেই তিনদিনের সিয়ামেরজন্যযথেষ্ট হবে না। আর যদি (আরাফার দিনে) সেই তিন দিনের কোন একদিনের নিয়্যতে সিয়াম পালন করে থাকেন, তবে তাআরাফার দিনেরজন্য যথেষ্ট হবে।আর যদি উভয় প্রকার রোজারনিয়্যত করেন তবে তা বেশী ভালো।

সূত্র: লিক্বাউল বাব আল মাফতূহ- ইবনে উছাইমীন (৫১/১৯)

মতামত প্রেরণ